মোবাইল দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করুন ৫ মিনিটে

মোবাইল দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি
How to creat a blog with mobile.

আপনি যদি মোবাইল দিয়ে সহজে একটি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার কথা ভাবছেন, তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন।

আজকে আমি কথা বলবো কিভাবে মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে হয়?

কিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট বানানো যায় এই বিষয়ে আজকে আমি কথা বলবো।

আপনারা যারা জানেন না যে, মোবাইল ফোন দিয়ে সহজে ফ্রি ওয়েবসাইট কিভাবে তৈরি করতে হয় তাদের জন্য আমার এই article উপকারে আসবে। পোষ্টটি শেষ পর্যন্ত পড়তে থাকুন।

কিভাবে মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে হয় ?

আসলে বর্তমানে কিছু সময়ের মধ্যেই সম্পূর্ণ ফ্রিতে একটি ব্লগ সাইট বানানো যায়। এতে আপনার সর্বোচ্চ ১০ মিনিট সময় লাগতে পারে।

আপনারা হয়তো অনেকেই মনে করেন যে, মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট বানানো যায় না। আসলে আপনাদের এই ধারণা ভুল।

কারণ, মোবাইল দিয়ে বর্তমানে যেকোন ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় অথবা সম্ভব।

একটি এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন দিয়ে আপনি চাইলে যেকোন ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন, কোন ধরনের সমস্যায় পড়তে হবে না।

আপনি হয়তো জানেন না যে, বর্তমানে নতুন যে ব্লগগুলো অথবা ব্লগিং এর ওয়েবসাইট গুলো তৈরি করা হচ্ছে, এগুলোর অধিকাংশ ওয়েবসাইট মোবাইল দিয়ে বানানো।

এমনকি মোবাইল দিয়ে ব্লগিং করে ওয়েবসাইট থেকে অনেকেই টাকা আয় করছেন।

সুতরাং, মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরির ধারণাটি আপনার কাছে পরিষ্কার হয়ে গেছে।

আপনিও চাইলে এন্ড্রয়েড মোবাইল ব্যবহার করে ব্লগ বানিয়ে Google AdSense থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

ওয়েবসাইট কি ?

ওয়েবসাইট হলো ইন্টারনেটের একটি ওয়েব পেজ। যেখানে ওয়েবসাইটের মালিক বিভিন্ন তথ্য প্রকাশ করতে পারে এবং ওয়েবসাইটি তার ইচ্ছামত ডিজাইন এবং নিয়ন্ত্রণ করতে পারে।

উদাহরণ হিসেবে কিছু ওয়েবসাইটের নাম বলছি যেমন,

কয়েকটি সেরা বাংলা ব্লগের নাম হলো:

  • Techtunes.co
  • Trickbd.com
  • Prothomalo.com
  • Priyo.com
  • Banglatech24.com
  • Jagonews24.com

এগুলো হলো এক একটি ওয়েবসাইট।

আপনার browser এর address bar এ এই ওয়েবসাইটের নাম type করে দেখে নিতে পারেন।

আরও অনেক হাজার হাজার বাংলা ব্লগ ওয়েবসাইট আছে। এতগুলো ওয়েবসাইটের নাম দেওয়া সম্ভব নয়।

আপনিও চাইলে এরকম ওয়েবসাইট নিজেই মোবাইল দিয়ে বানাতে পারেন। এ বিষয়ে আমি পুরো process বলে দিবো।

কিভাবে মোবাইল দিয়ে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় ?

ওয়েবসাইট তৈরি করার আগে আপনাকে জানতে আপনি কোন Content Management System (CMS) অথবা কোন website builder ব্যবহার করবেন?

এই প্রশ্নটির উত্তর এখন আমি আলোচনা করব।

ওয়েবসাইট তৈরির জন্য দুইটি wap builder সেরা। যেমন,

  • WordPress
  • Blogger

আপনি যদি ব্লগ ওয়েবসাইট বানাতে চান তাহলে আপনি এই দুইটির মধ্যে যেকোন একটি ব্যবহার করে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন।

WordPress কি?

WordPress হলো সেরা কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (CMS).

পৃথিবীর অধিকাংশ ব্লগ ওয়ার্ডপ্রেস দ্বারা পরিচালিত হয়।

এই অর্থে ওয়ার্ডপ্রেস সবচেয়ে জনপ্রিয়।

ওয়ার্ডপ্রেস এর মাধ্যমে সহজেই ওয়েবসাইট তৈরি এবং পরিচালনা করা যায়।

আনন্দের ব্যপার হলো, ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে কোন Codeing বা প্রোগ্রামিং দক্ষতার প্রয়োজন হয় না।

খুব সহজেই এর মাধ্যমে যেকোন ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়।

ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আমার এই আর্টিকেল টি পড়ে আসুন।

আশা করি ওয়ার্ডপ্রেস সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন।

ব্লগার (Blogger)

ব্লগার হলো গুগলের দ্বারা পরিচালিত একটি ফ্রি হোস্ট এর website builder সার্ভিস।

এর মাধ্যমে অধিক সহজে মোবাইল দিয়ে ব্লগ তৈরি করা যায়।

ব্লগার দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্পূর্ণ ফ্রি।

এখানে কোন ডোমেইন এবং হোস্টিং এর প্রয়োজন হয় না।

ডোমেইন এবং হোস্টিং কি এই বিষয়ে না বুঝে থাকলে আমার এই আর্টিকেলটি পড়ে আসুন।

আশা আশা করি আর্টিকেলটি পড়ে আপনি ডোমেইন এবং হোস্টিং কি এই বিষয়ে পুরোপুরি বুঝে গেছেন এবং ওয়েবসাইট তৈরি করতে কি কি লাগে এ বিষয়ে বহু ধারণা পেয়ে গেছেন।

এখন কথা হল ব্লগার দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করলে আপনাকে ডোমেইন হোস্টিং কিনতে হবে না অর্থাৎ এর জন্য আপনাকে কোন খরচ করতে হচ্ছে না।

ব্লগার আপনাকে একটি ফ্রি সাবডোমেইন প্রোভাইড করবে অর্থাৎ আপনার সাইটের ইউআরএলটি সাবডোমেইন আকারে হবে।

সাবডোমেইন কি ?

সাবডোমেইন হলো এরকম ডোমেইন নেম যেমন yoursitename.blogspot.com.

এখানে, yoursitename আপনার সাইটের জন্য দেওয়া নামটি থাকবে তারপর blogspot.com যুক্ত থাকবে।

আরেকটু ভালোভাবে বুঝিয়ে দিচ্ছি,

ব্লগারে আপনি যখন মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করবেন তখন এর একটি প্রসেসে আপনাকে সাইটের নাম দিতে হবে।

সেই সময়ে একটি প্রসেসে একটি ফাঁকা ঘর থাকবে। ফাঁকা কয়টি এরকম হবে। …. blogspot.com.

এখানে থাকা ঘরটিতে আপনি যে নামটি লিখবেন তার সাথে blogspot.com যুক্ত হয়ে আপনার সাইটের সেটি ইউআরএল অর্থাৎ সাবডোমেইন হবে।

আশা করি সাবডোমেইন কি এই বিষয়ে বুঝে গেছেন।

Blogger vs WordPress কোনটি সবচেয়ে ভালো ?

যদি এ প্রশ্নটি আসে যে ব্লগার ভার্সেস ওয়াডপ্রেস কোনটি সবচেয়ে ভালো তাহলে অবশ্যই এর উত্তরটি হবে ওয়াডপ্রেস।

এর কারণ হলো ওয়ার্ডপ্রেসে সকল ধরনের সুযোগ-সুবিধা রয়েছে এবং ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করায় সেরা।

তবে ওয়ার্ডপ্রেসে ওয়েবসাইট তৈরি করতে হলে আপনাকে ডোমেইন এবং হোস্টিং কিনতে হবে এজন্য আপনাকে কিছু টাকা খরচ করতে হচ্ছে।

আর এর বিপরীতে,

আপনি যদি ব্লগার দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান তাহলে আপনাকে কোন টাকা খরচ করতে হচ্ছে না।

সেখানে আপনি ফ্রি হোস্টিং এবং ফ্রী সাবডোমেইন পাচ্ছেন।

তবে ওয়ার্ডপ্রেসের তুলনায় ব্লগারে কিছু কম সুযোগ-সুবিধা রয়েছে সেগুলো হলো:

ব্লগার এর চেয়ে ওয়ার্ডপ্রেসের সুবিধাগুলো হলো:

ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে প্লাগইন ব্যবহার করা যায় বিভিন্ন কাজ করার জন্য ওয়ার্ডপ্রেসের এই বিভিন্ন প্লাগিনগুলো সাহায্য করে থাকে কিন্তু ব্লগারে প্লাগিন ব্যবহার করার কোনো সুযোগ নেই।

ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে ইউজার ম্যানেজমেন্ট এবং থিম কাস্টমাইজেশন এবং এসইও এর কাজ গুলো অনেক সহজেই করা যায় কিন্তু ব্লগারে তা বেশি সহজে হয় না।

সবচেয়ে আসল কারণ হলো, ওয়ার্ডপ্রেস নিজস্ব মালিকানাধীন অর্থাৎ সম্পূর্ণ সাইটটি আপনার নিজস্ব নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

কিন্তু ব্লগার নিজস্ব মালিকানাধীন নয়।

সুতরাং বলা যায় ব্লগারের তুলনায় ওয়ার্ডপ্রেসের সুযোগ-সুবিধা একটু বেশি।

ব্লগার এবং ওয়ার্ডপ্রেসে আপনি মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন।

তবে আমার পরামর্শ হলো,

আপনি যদি একদম নতুন হয়ে থাকেন এবং আপনি ব্লগার এর মাধ্যমে বিনামূল্যে ওয়েবসাইট তৈরি করে ব্লগিং করতে চান, তাহলে আপনি ব্যবহার ব্যবহার করতে পারেন।

আর আপনি যদি প্রথম থেকেই ভালোভাবে ওয়েবসাইটের কাজ শুরু করতে চান এবং ওয়েবসাইট থেকে ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে চান, তাহলে আপনার জন্য ওয়ার্ডপ্রেস সেরা।

কারণ প্রফেশনালভাবে ওয়েব সাইট তৈরি করতে হলে অবশ্যই ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে করা উচিত।

তো আমি প্রথমে ব্লগার এর মাধ্যমে মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি কিভাবে করতে হয় তা Step by step দেখাবো তারপর ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করা দেখাব।

ব্লগারে কিভাবে মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে হয় ?

Blogger Blog বানানোর নিয়ম, Step by step,

  • প্রথমে blogger.com অথবা blogspot.com সাইটে যান।
  • Create your blog বটনে ক্লিক করুন।
  • এবার আপনার Gmail Account দিয়ে চালিয়ে যান।
  • New blog এ যান।
  • Title এ আপনার ব্লগের নাম দিয়ে দিন।
  • Address এ আপনার ব্লগের Address দিবেন, শেষে অটোোমেটিক blogspot.com সেট থাকবে।
  • তবে যদি আপনার নামটি available থাকে তাহলে নিচে available দেখাবে এবং next এ ক্লিক করতে পারবেন। আর যদি না থাকে তাহলে অন্য নাম দিয়ে চেষ্টা করুন।
  • create blog এ ক্লিক করুন।
  • এখন আপনার ব্লগ তৈরি হয়ে গেছে ব্লগে পোষ্ট করতে New post ক্লিক করতে পারেন।

এভাবে আপনি ব্লগার ব্যবহার করে একটি ফ্রি ব্লগ তৈরি করে নিতে পারবেন।

ওয়ার্ডপ্রেসে মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার নিয়ম

wordpress দুটি প্লাটফর্ম রয়েছে একটা ফ্রি আর একটা প্রিমিয়াম। wordpress.com আর wordpress.org

WordPress.com এর মাধ্যমে ফ্রি ব্লগ তৈরি, Step by step

  • প্রথমে wordpress সাইটে যান এখানে start your website এ ক্লিক করুন।
  • এখানে account তৈরি করুন অথবা আপনার Google account দিয়ে লগইন করুন।
  • এবার একটা সার্চ বক্স আসবে সেখান আপনার ব্লগের নাম দিন আর নিচে free select ক্লিক করুন।
  • এরপর ওপর থেকে start with a free site ক্লিক করুন।
  • Your site has been create Get started এ ক্লিক করুন।
  • এখন আপনি ওয়ার্ডপ্রেস হোম পেজে পৌছে যাবেন। welcome to wordpress এখান থেকে আপনার ব্লগ সেটিং যেমন ব্লগের থিম, নাম, পেজ তৈরি পোস্ট ইত্যাদি করতে পারেন।

তো এই ছিলো আমার ওয়েবসাইট তৈরি করার টিউটোরিয়াল।

ফ্রি ব্লগ থেকে আয় কিভাবে করবেন?

যখন আপনার ব্লগ তৈরি হয়ে যাবে তারপর আপনি ব্লগে ব্লগ পোষ্ট লিখতে লিখতে থাকবেন। এরপর যখন আপনার ব্লগে 30 থেকে 40 টি পোষ্ট লিখা হয়ে যাবে তখন আপনি Google AdSense এর জন্য আবেদন করতে পারবেন। এরপর ব্লগ এপ্রুভ করলে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে আয় করতে পারবেন।

 

আমার শেষ কথা

আশা করি আপনি মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

আর আমি ফ্রি ব্লগ তৈরি করার নিয়ম, wordpress.com এবং blogspot.com দুই platform দিয়েই দেখিয়েছি।

আর যদি কোন সমস্যা হয় তাহলে নিচে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

আর পোষ্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন।

Leave a Comment