ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় করার সেরা ৮টি উপায় জেনেনিন

বন্ধুরা, আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় করার সেরা ৮টি উপায় সম্পর্কে জানবো। (Best online income tips for students).

যদি আপনি একজন student (ছাত্র) এবং স্টুডেন্ট হিসেবে অনলাইনে কিছু টাকা আয় করার উপায় খুজছেন তাহলে এই আর্টিকেলটি আপনার উপকারে আসবে।

ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয়
Ways to earn money online for students.

কারণ এই আর্টিকেলে আমি ছাত্রদের অনলাইন ইনকাম করার এমন ৮ টি উপায় আপনাদের জানিয়ে দিবো, যেগুলোর মাধ্যমে আপনি পরাশোনার পাশাপাশি কিছু সময় ব্যায় করে বা part time কাজ করে অনলাইন থেকে সহজেই আপনার হাত খরচের টাকা যোগাড় করতে পারবেন।

তাই আপনি যদি পরাশনার পাশাপাশি অনলাইনে ইনকাম করার কয়েকটি সহজ মাধ্যম জানতে চাচ্ছেন তাহলে আমার আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

এই আর্টিকেলে আমি college students দের জন্য অনলাইনে আয়ের অনেক ভালো এবং লাভজনক উপায়গুলো তুলে ধরেছি।

এই কাজগুলো পরাশোনার পাশাপাশি part time হিসেবে করে অনলাইন থেকে কিছু টাকা আপনি ইনকাম করে নিতে পারবেন।

ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় করার সেরা ৮ টি উপায়

বন্ধুরা, বর্তমানে ইন্টারনেটের যুগে এমনিতে অনেক ধরনের অনলাইন কাজ রয়েছে যেগুলো করে লোকেরা অনেক টাকা ইনকাম করছেন।

তাই আমি নিচে ছাত্র হিসেবে করা যায় এমন ৮ টি কাজের বিষয়ে আপনাদের বলেছি, যেগুলো আপনার মাথায় কোন বাড়তি চাপ সৃষ্টি করবে না।

কেননা, একজন স্টুডেন্ট এর পরাশোনার পাশাপাশি অনেক বাড়তি সময় থেকে যায় সেই সময়গুলোকে কাজে লাগিয়ে আপনি অনলাইন থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

আর এর মধ্যে এমন কতগুলো লাভজনক কাজ রয়েছে যেগুলো আপনি ভবিষ্যতে full time হিসেবে নিতে পারবেন।

আজকাল ইন্টারনেটে কিন্তু অনেক ধরনের কাজ যেগুলোতে অনেক টাকা আয় করা যায় বলে দেখানো হয়, কিন্তু অল্প সময়ের জন্য এই সব কাজ আপনি কখনো করবেন না।

কারণ এক্ষেত্রে দেখা যায় একটি কাজ আপনি কয়েকদিন করলেন তারপর সেই সংস্থা কাজটি বন্ধ করে দিলো এবং আপনার ইনকামের পথ বন্ধ হয়ে গেলো। এগুলো শুধু সময় নষ্ট ছাড়া আর কিছু না।

তাহলে জেনে নেওয়া যাক সেই রিয়াল উপায়গুলো সম্পর্কে যেগুলোর মাধমে ছাত্ররা অনলাইন থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

8 Ways to Earn Money Online for Students

বন্ধুরা, নিচে আমি আপনাকে যে কাজগুলো সম্পর্কে বলবো,  এগুলো আমি শুধু আপনাকে অনলাইনে ইনকামের পারফেক্ট উপায়গুলো সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত আকারে বলে দিবো।

যে কাজটি আপনি করবেন সেটি সম্পর্কে গুগলে সার্চ করলে বিস্তারিত তথ্য আপনি পেয়ে যাবেন। আর নিচে আমি এর সুবিধাগুলো সম্পর্কেও উল্লেখ করবো।

ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় করার উপায়

নিচে স্টুডেন্ট অনলাইন ইনকামের সেরা ৮টি উপায় জেনে নিন। (8 best ways to earn money online for collage students)

১. Blogger হিসেবে অনলাইন টাকা ইনকাম করুন

আপনি অবশ্যই স্টুডেন্ট হিসেবে blogging করে অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আপনি যদি লিখতে পছন্দ করেন তাহলে এটি আপনার জন্য অনেক সহজ হবে।বর্তমান সময়ে ব্লগিং একটি অনেক লাভজনক এবং গুরুত্বপূর্ণ অনলাইন ইনকামের মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ব্লগিং করার জন্য প্রথমে আপনাকে একটি অনলাইন ব্লগ তৈরি করতে হবে। এখন আপনাকে জানতে হবে ব্লগ কি এবং অনলাইন ব্লগ থেকে কিভাবে ইনকাম করা যায়?

ব্লগ হলো একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি নিজের জ্ঞান এবং অভিজ্ঞতা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় আর্টিকেল লিখতে পারবেন।

যদি আপনি কাজের বিষয় নিয়ে আর্টিকেল লিখে ব্লগে পাবলিশ করেন, যেগুলো লোকেরা গুগলে সার্চ করে। তাহলে আপনার কনটেন্ট পড়ার জন্য search engine থেকে অনেক ট্রাফিক বা ভিজিটর আপনার ব্লগে চলে আসবে।

আপনার ব্লগে যখন নিয়মিত প্রচুর ভিজিটর চলে আসতে থাকবে তখন ব্লগে Google Adsense এর বিজ্ঞাপন দেখিয়ে এবং Affiliate Marketing এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

২. ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম

ছাত্রদের জন্য অনলাইনে টাকা ইনকাম করার জন্য ফ্রিল্যান্সিং অনেক লাভজনক এবং গুরুত্বপূর্ণ একটি মাধ্যম।

ফ্রিল্যান্সিং করার মাধ্যমে আপনি সম্পূর্ণ স্বাধীনভাবে কাজ খুজতে পারবেন এবং করতে পারবেন। বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস গুলোতে বিদেশি অনেক লোকেরা বিভিন্ন কাজ পোষ্ট করে থাকেন।

আর ফ্রিল্যান্সাররা সেই কাজে বিড করার মাধ্যমে কাজটি করে এর বিপরীতে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য আপনাকে যেকোন একটি কাজের বিষয়ে দক্ষ হয়ে উঠতে হবে। তাহলে আপনি সেই কাজটি অনেক সহজেই করতে পারবেন।

প্রথমত আপনি ফ্রিল্যান্সিং part time হিসেবে করতে পারবেন।

ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস গুলোতে এমন কতগুলো কাজ রয়েছে যেগুলোর চাহিদা প্রচুর এবং এই আপনি পুরোপুরিভাবে শিখলে এবং করতে পারলে অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

যেমন, web design and development, marketing, business management, content writing, software development, seo, graphics design, SEO ইত্যাদি।

তাছাড়া আরও অনেক কাজের ক্যাটাগরি রয়েছে যে কাজগুলো আপনি শিখে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করতে পারেন।

ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস গুলো হলো fiverr, upwork, freelancher, peopleperhour, nexxt ইত্যাদি।

৩. ফটোগ্রাফি করে ইনকাম

ছাত্রজীবনে ফটোগ্রাফি করে ইনকাম করার অনেক সুযোগ রয়েছে এবং এই কাজটি অনেক সহজে করা যায়।

যদি আপনি ছবি তুলতে পছন্দ করেন তাহলে আপনি এই কাজটি করে অনলাইনে ইনকাম করতে পারবেন।

তাছাড়া বর্তমানে ফটোগ্রাফি অনেকেরই প্যাশন হয়ে দাড়িয়েছে, আর তাই এটি থেকে ইনকামের সুযোগ অবশ্যই রয়েছে।

ইন্টারনেটে অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলোতে আপনার তোলা ফটো বিক্রি করে টাকা ইনকাম করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনার ছবি অবশই high quality র হতে হবে।

আপনার বানানো ছবি বিভিন্ন stock photography marketplace গুলোতে বিক্রি করতে পারবেন। stock photography marketplace গুলোর বিভিন্ন রকমের ছবির চাহিদা রয়েছে।

দেশি বিদেশি বিভিন্ন মানুষ এই stock photography marketplace গুলো থেকে ছবি কিনে নিয়ে তাদের বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করেন। যেমন, এড, ম্যাগাজিন ইত্যাদি।

অনলাইনে ছবি বিক্রি করার কিছু জনপ্রিয় ওয়েবসাইট হলো suttterstock, istock, adobe stock, picxy, twenty20 ইত্যাদি।

এছাড়াও আরও অনেক online photo sell করার ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলোতে account বানিয়ে ছবি বিক্রি করে ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় করার সুযোগ অবশ্যই থাকছে।

৪. ইউটিউব থেকে ইনকাম

বর্তমানে ইউটিউব থেকে খুবই সহজেই ইনকাম করার প্রচুর সুযোগ রয়েছে। এখন ছোটরা থেকে শুরু করে বয়স্ক মানুষরা ইউটিউব থেকে প্রতি মাসে অনেক টাকা ইনকাম করছেন।

ইউটিউব থেকে টাকা আয়ের জন্য প্রথমে আপনাকে একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলতে হবে।

তারপর চ্যানেলে নিয়মিত ভিডিও আপলোড করতে হবে। ভিডিওগুলো অনেকে কাজের বিষয় নিয়ে বানাতে হবে।

এরপর যখন আপনার চ্যানেলে ভিউস আসতে থাকবে এবং সাবস্ক্রাইব এর পরিমাণ বাড়তে থাকবে তখন এক পর্যায়ে আপনি ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন এর জন্য এপ্লাই করতে পারবেন।

এরপর মনিটাইজেশন চালু হয়ে গেলে ভিডিওতে Google Adsense এর বিজ্ঞাপন দেখিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন।

ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন এবং চ্যানেল থেকে ইনকামের জন্য কয়েকটি নিয়ম রয়েছে।

ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন চালু করার জন্য আপনার চ্যানেলে ১০০০ সাবস্ক্রাইবার এবং লাস্ট ১ বছরে ৪০০০ ঘন্টা ওয়াচ টাইম থাকতে হবে।

চ্যানেলে মনিটাইজেশন অন হওয়ার পর যখন গুগল এডসেন্স একাউন্টে ১০ ডলার জমা হবে তখন এডসেন্স আপনাকে একটি চিঠি পাঠিয়ে দিবে যেখান থেকে পিন সংগ্রহ করে এডসেন্স ভেরিফাই করতে হবে।

যখন একাউন্টে ১০০ ডলার জমা হবে তখন আপনাকে bank account এর মাধ্যমে টাকা পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

৫. ই বুক বিক্রি করে ইনকাম

আপনারা অবশ্যই ইবুক কি এবং ইবুকের ব্যবহার সম্পর্কে জানেন। ই বুকের মাধ্যমে যেকোন বই মোবাইলের মাধ্যমে পড়া যায়।

যেকোন বই আমরা ইবুক আকারে মোবাইলে ডাউনলোড করে নিতে পারি এবং যখন প্রয়োজন খুলে পড়তে পারি।

তাই আপনি যদি যেকোন সাবজেক্ট এক্সপার্ট হয়ে থাকেন তাহলে সেই সাবজেক্ট এর উপর ইবুক বানিয়ে বিক্রি করতে পারেন। অথবা যেকোন একটি টপিকের উপর ই বুক বানাতে পারেন এবং সেগুলো বিক্রি করে ইনকাম করতে পারেন।

তবে এক্ষেত্রে আপনার ইবুকের কোয়ালিটি অনেক ভালো হতে হবে। অবশ্যই মানুষের চাহিদা থাকা বিষয় বা টপিকের উপর ভিডিও বানাতে হবে।

যে বিষয় বা টপিকটির উপর মানুষের ই বুক পড়ার চাহিদা রয়েছে। তাহলে আপনার ই বুকের প্রতি মানুষের চাহিদা বা আকর্ষণ বেড়ে যাবে এবং সেগুলো অনেক তাড়াতাড়ি বিক্রি হতে থাকবে।

আর সেখান থেকে আপনি benefit পাবেন। ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয়ের এটি একটি জনপ্রিয় মাধ্যম।

৬. ফাইভার (fiverr) থেকে ইনকাম

ছাত্রদের জন্য আউটসোর্সিং (outsourcing) করার সবচেয়ে জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেস হলো ফাইভার (fiverr).

কেননা ফাইভারে এমন অনেক সহজ কাজ পাওয়া যেতে পারে যা একজন স্টুডেন্ট খুব সহজেই করতে পারে।

যেমন, logo design, graphic design, photoshop editing, animation ইত্যাদি কাজ আপনি এখানে পেতে পারেন। এছাড়াও SEO ( Search Engine Optimization) এর বিষয়ে প্রচুর কাজ পাওয়ার সুযোগ এখানে রয়েছে।

ছাত্রদের জন্য আউটসোর্সিং করার এটি একটি খুব ভালো প্লাটফর্ম কাজ খোজার জন্য।

৭. অনলাইনে আর্টিকেল লিখে আয়

আপনি যদি স্টুডেন্ট অনলাইন ইনকামের সেরা মাধ্যমের খোজে আছেন তাহলে এটি আপনার জন্য সেরা বলে প্রমানিত হতে পারে। কেননা আপনি অনলাইনে বিভিন্ন ব্লগ বা ওয়েবসাইটে আর্টিকেল লিখে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আপনার যদি শিক্ষা বিষয়ক কোন বিষয়ে ভালো মতো জ্ঞান রয়েছে তাহলে আপনি সেই বিষয়ে আর্টিকেল লিখতে পারেন অনেক সহজেই।

আর্টিকেল লেখার কাজটি অনেক সহজ। কিন্তু আর্টিকেল লেখার জন্য আপনাকে প্রথমে এই কাজটি ভালোভাবে শিখে নিতে হবে।

এটি শেখার জন্য আপনি প্রথম কয়েক মাস সময় নিয়ে ভালোভাবে SEO Friendly আর্টিকেল লেখা শিখে নিবেন।

মনে রাখবেন, আপনি আর্টিকেল লেখার মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম করতে পারবেন।

আপনার যদি আর্টিকেল লেখার অনেক ভালো অভিজ্ঞতা রয়েছে তাহলে fiverr, freelancher, upwork ইত্যাদি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে পারবেন। তবে এই মার্কেটপ্লেসে আর্টিকেল লেখার কাজ করতে হলে আপনকে English ভাষায় আর্টিকেল লিখতে পারতে হবে।

যদি আপনি ইংরেজি তে ভালো আর্টিকেল লিখতে পারেন তাহলে প্রতিটি আর্টিকেল এর জন্য ৫$ থেকে ২০$ ইনকাম করার সুজোগ আপনার থাকবে।

আর্টিকেল লেখার জন্য আপনাকে যা যা করতে হবে:

যে টপিকের আর্টিকেল লিখবেন সে টপিকের উপর আপনার আগে থেকেই জ্ঞান থাকতে হবে।

আর যদি ভালো জ্ঞান না থাকে তাহলে ইন্টারনেট থেকে ভালো মতো সে বিষয়ে জেনে নিতে পারেন। আপনার আর্টিকেলে সম্পুর্ন ডিটেইলস যোগ করতে হবে, যে টপিকের উপর আর্টিকেল লিখবেন।

তো আর্টিকেল লেখার কাজটি শুরু করতে অবশ্যই যেকোন বিষয়ে প্রচুর জ্ঞান নেওয়া শুরু করুন।

৮. ySense থেকে paid sarvey করে অনলাইন টাকা ইনকাম

আপনার জন্য স্টুডেন্ট অনলাইন ইনকাম করার আরো অনেক মাধ্যম রয়েছে যেগুলো থেকে আপনি আয় করতে পারেন।
banglatech.info দ্বারা পাবলিশ করা ySense থেকে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায় এ বিষয়ে আর্টিকেলটি পড়ুন।

সর্বশেষ

বন্ধুরা এই আর্টিকেলে আমরা জানলাম স্টুডেন্টরা ঘরে বসে অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন এমন ৮ টি সেরা কাজের বিষয়ে।

এগুলো ছাড়াও আরো অনেক কাজ রয়েছে ছাত্রদের জন্য তবে আমার হিসেবে একজন স্টুডেন্ট এর জন্য এই কাজগুলো করা লাভজনক এবং সেরা প্রমানিত হবে। যেহেতু বর্তমানে পুরো পৃথিবী ইন্টারনেটের দিকে ঝুকে পড়ছে।

তাই আপনি উপরের কাজগুলো প্রথমত part time হিসেবে নিয়ে করতে পারেন তারপর যদি সেটি আপনার জন্য ভালো এবং লাভজনক মনে হয় তাহলে full time হিসেবে নিয়ে নিতে পারবেন।

আর কোন প্রশ্ন থাকলে অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে আমাকে জানিয়ে দিবেন।

Leave a Comment